ইরানের পররাষ্ট্রমন্ত্রীর আকস্মিক পদত্যাগ !

0
108

ইরানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী মোহাম্মদ জাভেদ জারিফ আকস্মিকভাবে পদত্যাগ করেছেন। এই খবর তিনি ঘোষণা করেছেন সামাজিক মাধ্যমে নিজের ইনস্টাগ্রাম অ্যাকাউন্টে। ওই পোস্টে দায়িত্ব পালনকালে নিজের “ভুল-ত্রুটির” জন্য তিনি ক্ষমাও চেয়েছেন।

ইরান এবং আন্তর্জাতিক ক্ষমতাধর দেশগুলোর মধ্যে ২০১৫ সালের পরমাণু চুক্তির মধ্যস্থতার ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেন মিস্টার জারিফ। কিন্তু মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প মার্কিন সম্পৃক্ততা সরিয়ে নিয়ে এই চুক্তির ভবিষ্যৎ নিয়ে অনিশ্চয়তা তৈরি হয়।

ইরানের রাষ্ট্রীয় সংবাদ সংস্থা ইরনা পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের একজন মুখপাত্রের বরাত দিয়ে মিস্টার জারিফের পদত্যাগের বিষয়টি নিশ্চিত করেছে ।

৫৯বছর বয়সী মিস্টার জারিফ যুক্তরাষ্ট্রে পড়াশোনা করেছেন এবং ইউনিভার্সিটি অব ডেনভার থেকে আন্তর্জাতিক আইন বিষয়ে পিএইচডি করেন। জাতিসংঘে ইরানের অ্যাম্বাসেডর হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন তিনি ।

ইরানকে আরও উদার দেশ হিসেবে গড়ে তোলার প্রতিশ্রুতি দিয়ে প্রেসিডেন্ট হিসেবে হাসান রুহানি নির্বাচিত হলে ২০১৩ সালে দেশটির পররাষ্ট্রমন্ত্রী হিসেবে নিয়োগ পান মিস্টার জারিফ।

ইরানের পরমাণু কর্মসূচি সীমিত করার পরমাণু চুক্তি থেকে আমেরিকা নিজেদের প্রত্যাহার করে নেয়ার পর থেকে মিস্টার জারিফ দেশের ভেতরে হার্ড-লাইনারদের দ্বারা চাপের মুখে ছিলেন।

এদিকে সোমবার সিরিয়ার প্রেসিডেন্ট বাশার আল আসাদ ইরানের সবোর্চ্চ নেতা আয়াতোল্লাহ খোমেনির সাথে তেহরানে সাক্ষাত করেছেন, তবে পর্যবেক্ষকরা বলছেন সেখানে আলোচনায় পররাষ্ট্রমন্ত্রী মিস্টার জারিফ ছিলেন না। সিরিয়ার চলমান গৃহযুদ্ধে দেশটির সরকারের প্রধান সমর্থনকারী দেশের একটি ইরান। তেহরান সফরকে ২০১১ সালে যুদ্ধ শুরুর পর থেকে রাশিয়া ছাড়া মিস্টার আসাদের প্রথম বিদেশ সফর মনে করা হচ্ছে।

জাভেদ জারিফের হঠাৎ পদত্যাগের ঘটনায় জল্পনা-কল্পনার ডালপালা ছড়িয়েছে। যে সময়টাতে ইরানকে নানারকম সঙ্কটের মধ্য দিয়ে যেতে হচ্ছে তেমন সময় এই পদত্যাগ প্রেসিডেন্ট রুহানি মেনে নেবেন কি-না সেটি পরিষ্কার নয়। এই সিদ্ধান্ত অবশ্য নির্ভর করছে সবোর্চ্চ নেতা আয়াতোল্লাহ খোমেনির ওপর ।