নিউজিল্যান্ডে মসজিদে সন্ত্রাসী হামলায় তিন বাংলাদেশিসহ নিহত ৪৯

0
60

নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চে মসজিদে বন্দুকধারী সন্ত্রাসী হামলায় তিন বাংলাদেশিসহ কমপক্ষে ৪৯ জন নিহত হয়েছেন। এতে অন্তত; ২৭ জন আহত হয়েছেন বলে জানিয়েছেন নিউজিল্যান্ড পুলিশ কমিশনার মাইক বুশ। হামলার সময় মসজিদের কাছেই ছিলেন বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের খেলোয়াগরা। যদিও তারা সবাই সুরক্ষিত আছেন বলে জানানো হয়েছে।

হামলার পর পরই গোটা এলাকায় নিরাপত্তা বাড়ানো হয়েছে। ঘটনা জড়িত সন্দেহে চার জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। এর মধ্যে একজন মহিলা। 

বেলা পৌনে ২টা। মসজিদের ভেতরে চলছে জুম্মার নামাজ। জড়ো শত শত মুসল্লি। হঠাৎ গুলির শব্দ। ছুটোছুটি শুরু হয় গেল মসজিদের ভেতর। সেনার পোশাকে থাকা বন্দুকধারী নির্বিচারে চালায় গুলি। মুহূর্তে রক্তে ভেসে যায় মসজিদ চত্বর। মসজিদে এধরনের হামলার ঘটনাকে দেশের অন্ধকারতম দিনগুলির মধ্যে একটি বলে উল্লেখ করে তাৎক্ষনিক ব্রিফ করেছেন নিউজিল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী জেসিন্ডা আরডার্ন।

প্রাথমিক ভাবে পুলিশ জানিয়েছে, সেনার পোশাকে মসজিদের ভেতর ঢুকেছিল ওই বন্দুকধারী।

এক প্রত্যক্ষদর্শী জানিয়েছেন, কালো পোশাকে মসজিদের ভেতর ঢুকেছিল ওই বন্দুকধারী। তার কথায়, তখন মসজিদের অন্য একটি দরজার সামনে দাড়িয়েছিলাম। জুম্মার নামাজ চলছিল। হঠাৎ গুলি চালাতে শুরু করে ওই বন্দুকবাজ সন্ত্রাসী। কম করে চার-পাঁচ জনকে মৃত অবস্থায় দেখতে পান বলে জানান তিনি।

নিউজিল্যান্ডের পুলিশ কমিশনার মাইক বুশ জানিয়েছেন, ঘটনাস্থলে পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে৷ গোটা এলাকা ঘিরে রাখা হয়েছে।

পুলিশ কমিশনার বলেন, ক্রাইস্টচার্চের সব স্কুল বন্ধ করা হয়েছে। এছাড়া সাধারণ চলাচলের উপরও নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে। তিনি বলেন, ঘটনায় গুরুতর আহত বহু মানুষকে হাসপাতালে ভর্তি  করা হয়েছে। মসজিদের আশপাশের দুই কিলোমিটার এলাকা ঘিরে রেখেছে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী।

নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে চলতি টেস্ট সিরিজের তৃতীয় ম্যাচ খেলতে বাংলাদেশ দল এখন ক্রাইস্টচার্চে অবস্থান করছে। শনিবার বাংলাদেশ সময় ভোরে হ্যাগলি ওভালে স্বাগতকদের বিপক্ষে টাইগারদের খেলতে নামার কথা ছিল।

এদিকে এই পরিস্থিতিতে বাংলাদেশ ও নিউজিল্যান্ডের মধ্যকার চলতি সিরিজের তৃতীয় টেস্ট ম্যাচটি সমঝোতার ভিত্তিতে বাতিল ঘোষণা করেছে নিউজিল্যান্ড ক্রিকেট বোর্ড ও বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড।