ঝিনাইদহে ক্লিনিকে মেয়াদ উত্তীর্ণ ওষুধ রাখার অপরাধে ভ্রাম্যমান আদালতে জরিমানা

0
64

স্টাফ রিপোর্টার, ঝিনাইদহঃ ঝিনাইদহ কালীগঞ্জে এমবিবিএস পাশ না করে কাগজপত্রে চিকিৎসক লেখার অপরাধে একজন প্রাইভেট ক্লিনিকের মালিকেকে ৫ হাজার টাকা ও অপর একটি ক্লিনিকে মেয়াদ উত্তীর্ণ ওষুধ রাখার অপরাধে ৩ হাজার টাকা জরিমানা করেছে ভ্রাম্যমান আদালত।

রোববার দুপুরে কালীগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট সুবর্ণা রানী সাহা এ আদালত পরিচালনা করেন। এ সময় উপস্থিত ছিলেন ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের ঝিনাইদহ সহকারী পরিচালক সুচন্দন মন্ডল।

ইউএনও সুবর্ণা রানী সাহা জানান, দীর্ঘদিন যাবন কালীগঞ্জ শহরের নীমতলা বাসষ্ট্যান্ডে ইসলামি (প্রা:) হাসপাতালের মালিক সুমন হোসনে এমবিবিএস পাশ না করে নিজের নামের আগে চিকিৎসক ব্যবহার করে রোগি দেখতেন। তিন বছরের মেডিকেল অ্যাসিসট্যান্ট কোর্স করেই নামের আগে ডা. পদবি লাগিয়ে নিয়েছেন ঝিনাইদহের কালীগঞ্জের ইসলামি প্রাইভেট হাসপাতালের মালিক. সুমন হোসেন। তিনি পরিচয় দিয়ে আসছিল মা ও শিশুবিষয়ক চিকিৎসক। সুমন হোসেন ফরিদপুরের ইনস্টিটিউট অব মেডিকেল অ্যাসিসট্যান্ট থেকে৩ বছর মেয়াদি একটি কোর্স সম্পন্ন করেন। এরপর তিনি বাংলাদেশ মেডিকেল অ্যান্ড ডেন্টাল কাউন্সিল থেকে মেডিকেল অ্যাসিসট্যান্ট পেশাদার হিসেবে রেজিস্ট্রেশন ভুক্ত হন। এই সার্টিফিকেট দিয়েই তিনি নামের আগে ডাক্তার পদবি লাগিয়ে বনে গেছেন ও মা ও শিশুবিষয়ক চিকিৎসক। শহরের নিমতলায় নিজের মালিকানাধীন ইসলামি প্রাইভেট হাসপাতালে রোগী দেখছেন তিনি।

এ ব্যাপারে ঝিনাইদহ সিভিল সার্জন ডা. সেলিনা বেগম বলেন, এমবিবিএস পাস ছাড়া কেউ নামের আগে কেউ ডাক্তার পদবি লিখতে পারেন না। মেডিকেল অ্যাসিসট্যান্ট কোর্স করে নামের আগে ডাক্তার লেখার কোনো সুযোগ নেই।

গত ৩০ মার্চ রাতে কালীগঞ্জ শহরের নিমতলায় সুমন হোসেনের মালিকানাধীন এই ইসলামিয়া প্রাইভেট হাসপাতালে ডাক্তার প্রফুল কুমারের ভুল অপারেশনে সোনালী খাতুন (২১) নামে এক প্রসুতি মায়ের মারা যাওয়ার অভিযোগ রয়েছে। ক্লিনিকটির পরিবেশ খুবই নোংরা ও পাশ করা কোন নার্স নেই। মালিক নিজেই ডাক্তার সেজে রোগি দেখেন ও ক্লিনিকে অপারেশন করে থাকে। এর কারণে তাকে ৫ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।

এছাড়াও শহরের বাসষ্ট্যান্ড এলাকায় সুমন ক্লিনিকে অভিযান চালিয়ে সেখানে মেয়াদ উত্তীর্ণ ওষুধ রাখার অপরাধে ৩ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।

ইউএনও জানান, আসন্ন পবিত্র মাহে রমজান উপলক্ষে বিভিন্ন হোটেল, দোকানে পরিস্কার পরিচ্ছন্নতা এবং দ্রব্য মুল্য সহনীয় পর্যায়ে রাখতে নির্দেশণা প্রদান করা হয়েছে।