সিলেটে লোডশেডিং চরমে; ভোগান্তিতে গ্রাহকরা

0
78

সিলেট প্রতিনিধি: মহিমান্বিত রমজান মাসে প্রচন্ড গরমের সাথে পাল্লা দিয়ে বেড়েছে লোডশেডিং। প্রচণ্ড গরম আর লোডশেডিংয়ে প্রাণ ওষ্ঠাগত জেলা শহর সিলেটসহ সিলেটের বিভিন্ন উপজেলার অধিবাসীদের।
লোডশেডিং এর মাত্রা সবচেয়ে বেশি সিলেটের গোলাপগঞ্জ, জকিগঞ্জ, কানাইঘাট ও ফেঞ্চুগঞ্জে।

দ্বিতীয় লন্ডনখ্যাত সিলেটের এ অঞ্চলগুলো এখনো শতভাগ ও নিরবিচ্ছিন্ন বিদ্যুৎ সেবা থেকে বঞ্চিত। ২৪ ঘন্টার মাধ্যে ৮ ঘন্টা বিদ্যুৎ থাকলে ১৬ ঘন্টাই বিদ্যুৎ থাকেনা। বিদ্যুৎ এর লোডশেডিং এর প্রবনতা নামাজ ইফতার ও সেহরীর সময় বেশী লক্ষনীয়। কিন্তু এত লোডশেডিং এর পরও বিদ্যুৎ বিল কমার পরিবর্তে উত্তর উত্তর বৃদ্ধি পাচ্ছে। অর্থাৎ মাস শেষে বিল সমান! তাই হতাশার সুরে গ্রাহকদের বলতে শুনা যায় নিরবিচ্ছিন্ন বিদ্যুৎ সেবা নয় বিদ্যুতের লোডশেডিং এর উন্নতি হয়েছে।

বিদ্যুতের লাগামহীন লোডশেডিং এর কারনে রোজাদারদের মারাত্মক কষ্টের শিকার হতে হচ্ছে। সেহরি-ইফতার কোন বাছবিচার নেই লোডশেডিংয়ের। প্রতিদিন অসংখ্যবার বিদ্যুতের আসা যাওয়া তামাশায় পরিণত হয়েছে। এ তামাশায় যোগ হয়েছে কর্তৃপক্ষের উদাসীনতা।

বৃহস্পতিবার (৯ মে) সিলেটের বিভিন্ন উপজালায় ইফতারের সময় বিদ্যুৎ চলে যায় এবং রাত ৯টার পর বিদ্যুৎ আসে। সেই সাথে পল্লী বিদ্যুতের গ্রাহক সেবা নাম্বার বিরতিহীন ভাবে ব্যস্ত থাকে, তাও কোন সময় কল ঢুকলে রিসিভ করা হয় না বলে অভিযোগ গ্রাহকদের। এ সম্পর্কে সিলেট-১ এর বিদ্যুৎ অফিসে যোগাযোগের চেষ্টা করা হলে নাম্বার লাগাতার বিজি থাকার কারনে কিছু জানা সম্ভব হয়নি।