বন্দরে প্রভাবশালীর প্রশ্রয়ে সিএসডির কাজে অনিয়ম

0
27

বন্দর প্রতিনিধি: বন্দরে নারায়ণগঞ্জ জেলা কেন্দ্রীয় খাদ্য গুদাম (সিএসডি)র খালের বাউন্ডারির কাজে অনিয়ম। টেন্ডারের সর্তবলী অমান্য করে ঠিকাধারের ইচ্ছামত কাজ করছে বলেও জানতে পারা যায়।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা যায়, স্থানীয় প্রভাবশালী রিপন প্রধানের প্রশ্রয়ে নিন্মমানের মাল ব্যবহার করে নিজের ইচ্ছে মত কাজ চালাছে ঠিকাধার।

রবিবার সকালে একরামপুর ইস্পাহানী বাজার এলাকায় সরজমিনে গিয়ে দেখা যায়, বন্দরের একরামপুর ইস্পাহানী এলাকায় অবস্থিত সিএসডির খালটি দীর্ঘদিন সিটি কর্পোরেশনের সম্পত্তি হিসেবে ব্যবহৃত হলেও কাগজপত্রে দেখা গেছে খালটি সিএসডির নিজস্ব হিসেবে রেকর্ডভুক্ত। এখানে প্রায় ২ একর মুল্যবান সম্পত্তি রয়েছে যার মুল্য কয়েক কোটি টাকা হবে। সিএসডির মূল বাউন্ডারীর বাইরে হওয়ায় খালটি বিভিন্ন শ্রেণীর লোকজন হরিলুটের মতো দখল করে নেয়। দখল উচ্ছেদ করে বাউন্ডারি দেওয়ার জন্য টেন্ডার দেওয়া হয় রাতা কনেক্টাসনকে। ইস্পাহানী ঘাট হইতে ইস্পাহানী বাজার প্রযন্ত সিএসডির খালের বাউন্ডারি কাজ করা হচ্ছে নিন্মমানের মালা মাল ব্যাবহার করে যা টিকসই নয়। এখনো কাজ শেষ না হতেই ভ্যাংঙ্গে পরছে স্থাপন, ১৫ ফিটের পিলার স্থাপনের কথা থাকলেও সেখানে ৪ ফুটের পিলার স্থাপন করা হচ্ছে।

এ নিয়ে ঠিকাধার কবির হোসেনের সাথে কথা বলতে চাইলে স্থানীয় রিপন প্রধান ঠিকাধারকে সাংবাদিদের সাথে কথা বলতে বাধা সৃষ্টি করে এবং উত্তেজীত হয়ে বলেন, ছবি তোলে কি করবেন করেন কাজ চলবে ঠিকাধারের ইচ্ছা মত। কাজ চলবে কাজ কে বন্ধ করে দেখি আমি কাউন্সিলর দুলাল প্রধানের ভাই আমি রিপন প্রধান যেমনে চাইবো ঠিক তেমনেই হবে।

এ ব্যাপারে একাধিক ব্যাক্তি সাংবাদিকদের বলেন, কাজের চরম অনিয়ম হচ্ছে। কাজ বন্ধ করতে গিয়েও ফিরে এসেছি বন্ধ করতে পারিনাই প্রবাব শালীর কারনে। তাই আমরা সিএসডির মেনেজারের কাছে কাজের অনিয়মের কথা যানাই।

এ বিষয়ে নারায়ণগঞ্জ জেলা কেন্দ্রীয় খাদ্য গুদাম (সিএসডি)র মেনেজার আছমাউল হোসনার সাথে আলাপ কালে বলেন, আমার কাছে কাজের অনিয়মের অভিযোগ আসার সাথে সাথে আমি কাজ বন্ধ করে দিয়েছি এবং তিন সদস্য বিসিষ্ঠ কমিটি করে দিয়েছি কমিটি রিপটের পরিপেক্ষিতে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।