স্ত্রীর ‘পরকীয়া’ জেনে ফেলায় স্বামীকে অপহরণ ও মারপিটের অভিযোগে থানায় মামলা !

0
95


সাটুরিয়া (মানিকগঞ্জ) প্রতিনিধি ঃ  মানিকগঞ্জের সাটুরিয়া উপজেলায় ভোঁয়া গ্রামে স্ত্রীর সাথে ইউপি সদস্যের পরকীয়ায় বাধা দেওয়ায় ভ্যান চালক স্বামীকে অপহরণ করে বেধম মারপিটের অভিযোগে থানায় মামলা হয়েছে। মজনুর পিতা সাটুরিয়া থানার ৩ (৯) ১৯ নং মামলা দায়ের করেন।

সরেজমিনে জানা যায়, উপজেলার দিঘুলীয়া ইউনিয়নের ভোঁয়া গ্রামের শেখ নাজিম উদ্দিনের ছেলে ভ্যান চালক শেখ মজনু মিয়ার (৪৮) স্ত্রীর সাথে পার্শ¦বর্তী বরাইদ ইউপি সদস্য এছাক আলীর (৪৫) সাথে দীর্ঘদিন যাবত পরকীয়া প্রেমের সম্পর্ক চলছিল।

বিষয়টি স্বামী মজনু মিয়া জানতে পেরে তার স্ত্রী ও পরকীয়া প্রেমিক এছাক আলীকে সতর্ক করে। বিষয়টি মজনু মিয়া স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিদের জানায়।

মামলায় বর্ণিত অভিযুক্তরা স্ত্রীর সহযোগিতায় স্বামী মজন্য মিয়াকে বিগত ২১/০৮/১৯ তারিখে রাতে ঘুমানোর ঘরে কৌশলে হত্যার উদ্দেশ্যে হাত পা বেধে পাশের জনৈক শহিদের বাড়ির দক্ষিণ পাশে নিয়ে বেধম মারপিট করে ফেলে যায়।

হাত পা বাধা অবস্থায় অচেতন অবস্থায় স্থানীয়রা দেখতে পেয়ে মজনু মিয়ার পরিবারে খবর দেয়। পরে তাকে উদ্ধার করে চিকিৎসার জন্য হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। ওই অভিযোগে পুলিশ এছাক মেম্বারকে আটক করে আদালতে পাঠায়।

সূত্র জানায়, অভিযুক্ত এছাক মেম¦ারের বিরুদ্ধে প্রতারণা, ঘুষ ও নারী কেলেংকারীসহ ৪টি মামলা রয়েছে।

মজনু মিয়া জানায়, এছাক মেম্বার আদালত থেকে জামিনে মুক্তি পেয়ে মামলা তুলে নেওয়ার জন্য হুমকি দিচ্ছে। এখন নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছি। এছাড়াও স্ত্রী চাপ দিয়ে জমি-জমা লিখে নেয়। একশত টাকা মূল্যের পাঁচটি সাদা স্ট্যাম্পে স্বাক্ষর নিয়েছে।

এবিষয়ে অভিযুক্ত এছাক আলীর বাড়িতে গেলে তাকে পাওয়া যায়নি। তার মুঠোফোনে একাধিকবার কল দিয়েও তাকে পাওয়া যায়নি।