ভেদরগঞ্জে জিয়াউর রহমানের শাহাদাত বার্ষিকীর অনুষ্ঠানে আওয়ামলীগ ও পুলিশের বাঁধা !

0
80

শরীয়তপুর প্রতিনিধি : ভেদরগঞ্জের সখিপুরে জিয়াউর রহমানের ৪১তম শাহাদাত বার্ষিকী উপলক্ষে মিলাদ ও দোয়া মাহ-ফিলের অনুষ্ঠান আওয়ামলীগের নেতাকর্মী ও পুলিশের বাঁধায় পন্ড হয়ে গেছে বলে অভিযোগ বিএনপি নেতাকর্মীদের। এ সময় জেলা বিএনপির সভাপতি ও সাবেক এমপি সফিকুর রহমান কিরনকে ৫ মিনিটের মধ্যে তার নিজ বাড়ী ও এলাকা ত্যাগ করার আল্টিমেটাম দেন বলেও অভিযোগ পাওয়া গেছে।

তবে সখিপুর থানা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি জিতু মিয়া বেপারী দাবী করেন বিএনপির অনুষ্ঠানে বাঁধা দেয়া হয়নি, কিরন সাহেবের বাড়ীর সামনে আওয়ামীলীগ নেতাকর্মীরা জড়ো হয়েছিল। পরে নেতাকর্মীদের চলে যেতে বললে আমাদের নেতাকর্মীরা চলে যায়। সখিপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আসাদুজ্জামান হাওলাদার জানান, একই স্থানে দুই পক্ষের অনুষ্ঠান থাকায় শান্তি শৃংখলা রক্ষার জন্য পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। পুলিশ কোন অনুষ্ঠানে বাঁধা দেয়নি।

সখিপুর থানা যুবদলের সভাপতি মোস্তাক আহাম্মেদ মাসুম বালা ও একাধিক বিএনপি নেতাকর্মীরা জানান, শরীয়তপুর জেলা বিএনপির উদ্যোগে শরীয়তপুর জেলার সখিপুর থানার বালার বাজার শরীয়তপুর জেলা বিএনপির সভাপতির বাসভবনের সামনে আজ সোমবার শহীদ রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের ৪১তম শাহাদাত বার্ষিকী পালন উপলক্ষে আলোচনা সভা, কোরআন খতম, মিলাদ ও দোয়া মাহফিলের আয়োজন করা হয়।

ভোর ৬টা থেকে স্থানীয় মাদ্রাসার ছাত্ররা বেলা ১০টা পর্যন্ত জেলা বিএনপির সভাপতি সফিকুর রহমান কিরনের বাসভবনে কোরআন খতম করে। বেলা ১১টার দিকে সখিপুর থানা আওয়ামলীগের সাধারন সম্পাদক আতিকুর রহমান মানিক সরকার, সহ-সভাপতি আনোয়ার বালা, জিতু মিয়া বেপারীর নেতৃত্বে বিএনপি নেতার্কীদের অনুষ্ঠানে প্রবেশে বাঁধা দেয়।

এর আগে যে সকল নেতাকর্মীরা জেলা বিএনপির সভাপতির বাসভবনে প্রবেশ করেছে তাদেরকে বের করে দেয়আওয়ামীলীগের নেতাকর্মীরা। পরে সখিপুর থানা পুলিশও আমাদের পূর্ব ঘোষিত অনুষ্ঠান করতে বাঁধা প্রদান করে। এই সময় জেলা বিএনপির সভাপতি শফিকুর রহমান কিরনকে ৫ মিনিটের মধ্যে তার নিজ বাড়ী ও এলাকা ত্যাগ করার আল্টিমেটাম দেয় পুলিশ ও আওয়ামীলীগ নেতাকর্মীরা।

এদিকে আওয়ামীলীগের নেতাকর্মী ও সখিপুর পুলিশ সদস্যরা কিরনের বাসভবনের সামনে দুপুর ১২টা থেকে সন্ধা পোনে ৭টা পযর্ন্ত অবস্থান করায় তিনি তার নিজ বাড়িতে অবরুদ্ধ হয়ে আছেন বলেও দাবী করেন বিএনপি নেতাকর্মীরা। এ ব্যাপারে সখিপুর থানা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক আতিকুর রহমান মানিক সরকারের সাথে তার মোবাইল ফোনে একাধিক বার ফোন করলেও সে ফোন রিসিভ করেনি। শরীয়তপুর জেলা বিএনপির সভাপতি সফিকুর রহমান কিরন বলেন, আমরা নিজেদের বাসভবনেও নিরাপদ না।

পুলিশ ও আওয়ামীলীগের নেতাকর্মীদের বাঁধার কারনে আমার নিজ বাসভবনেও বিএনপি নেতাকর্মী, এতিম-অসহায় ও দুস্থঃদের নিয়ে জিয়াউর রহমানের ৪১তম শাহাদাত বার্ষিকী পালন করতে পারিনি। অথচ বর্তমান সরকার বার বার গনতন্ত্রের দোহাই দিচ্ছে। তাহলে আজ তাদের গনতন্ত্র কোথায়?

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here