ভূয়া আমমোক্তারনামা বানিয়ে জায়গা বিক্রি !

0
278
বার্তাপ্রেরক কাজল নাথ: জাল আমমোক্তারনামা দলিল তৈরি করে অর্ধ কোটি টাকার জমি হাতিয়ে নিতে সক্রিয় চক্রের বিরুদ্ধে সংবাদ সম্মেলন করেছে ভুক্তভোগী পরিবার।চট্টগ্রামের হাটহাজারী উপজেলার মায়া রানী নাথের পৈতৃক সম্পত্তি অন্য এক নারীকে দাতা সাজিয়ে আমমোক্তারনামা দলিল তৈরি করে মাহবুবুল আলম নামের এক ব্যক্তি।
তার এক মাস পরে গত ২০১৯ সালের মার্চে দি চিটাগাং কো অপারেটিভ সোসাইটির নিকট বিক্রি করে দেয় তারা। গতকাল শনিবার চট্টগ্রাম প্রেসক্লাবের এস রহমান হল মিলনায়তনে সকাল ১১টায় অনুষ্টিত এক সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠকালে এসব অভিযোগ করেন পাপিয়া দেবী।
সংবাদ সম্মেলনে তিনি আরো বলেন, চলতি বছরের আগস্ট মাসে ভুমি অফিসে খাজনা দিতে গেলে মায়া রানী নাথের ছেলে কাজল নাথকে জানানো হয়, এই জায়গা আপনার মা বিক্রি করে দিয়েছেন। মায়া রাণী নাথের ছেলে কাজল নাথ সংবাদ সম্মেলনে অভিযোগ করে আরো বলেন,ভূমি অফিসের কতিপয় কর্মচারীর যোগসাজসে মাহবুবুল গংরা এই জালিয়াতি করেছে।
পরে তারা আদালতে মামলা করলে পিআইবিকে মামলার তদন্ত ভার দেন আদালত। সংবাদ সম্মেলনে কাজল নাথ বলেন, তদন্তে জাল জালিয়াতির বিষয়টি উঠে আসলে আমি আমমোক্তার নামা ও সেটি দিয়ে সাফ কবলায় দি চিটাগাং কো অপারেটিভ হাউজিং সোসাইটি লি: এর কাছে বিক্রির দলিল দুটি বাতিলের মামলা করেছি।বিষয়টি যখন আদালতের বিচারাধীন তখন বিবাদীরা আমার ফসল নষ্ট করে জোর করে মাটি ও বালি দিয়ে জমি ভরাট করছে। তাতে বাধা দিলে তারা আমি ও আমার পরিবারকে হুমকি দিচ্ছে।
তারা আদালত ও প্রশাসনের নিষেধাজ্ঞা মানছে না বলে সংবাদ সম্মেলনে অভিযোগ করেন মায়া রাণী নাথের পুত্রবধু পাপিয়া দেবী।এসময় তিনি কান্নাজড়িত কন্ঠে বলেন,আমার মত অনেকের এই জাল দলিল ও খতিয়ান তৈরী চক্রের হাতে বাপ-দাদার জমি-জমা বেদখল হয়ে যাবে।
আজ আমি অসহায় বলে বিবাদীরা অতি ক্ষমতাধর হওয়ায় সুষ্ঠু বিচার পেতে আদালত ও প্রশাসনের পাশাপাশি তিনি সাংবাদিকদের সহযোগীতা কামনা করেন। সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন কাজল মহাজন,পাপিয়া দেবী,কৃষঞা নাথ,পরিমল নাথ ,শিমুল নাথ ও চন্দন নাথ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here