Thursday, November 26, 2020
Home অপরাধ জগত চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে ইউএনও'র অভিযোগের তদন্ত প্রতিবেদন মন্ত্রনালয়ে !

চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে ইউএনও’র অভিযোগের তদন্ত প্রতিবেদন মন্ত্রনালয়ে !

শাহিনুর ইসলাম প্রান্ত, লালমনিরহাট প্রতিনিধিঃ লালমনিরহাটের আদিতমারী উপজেলা পরি-ষদের চেয়ার- ম্যান ফারুক ইমরুল কায়েসের বিরুদ্ধে ইউএনওসহ ১৮জন অফিসারের লিখিত অভি-যোগের তদন্ত প্রতিবেদন মন্ত্রনালয়ে পাঠানো হয়েছে। সোমবার(১৬ নভেম্বর) সন্ধ্যায় প্রতিবেদন টি মন্ত্রনালয়ে পাঠানো হয়েছে বলে নিশ্চিত করেন লালমনিরহাট জেলা প্রশাসক আবু জাফর।এর আগে বৃহস্পতিবার (১২ নভেম্বর) রাতে গণস্বাক্ষরিত অভিযোগটি জেলা প্রশাসক বরাবরে দায়ের করেন ইউএনওসহ ১৮জন অফিসার।
জেলা প্রশাসক আবু জাফর জানান, আদিতমারী উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে উপজেলার কর্মকর্তাদের লিখিত অভিযোগটি দ্রুত তদন্ত করে প্রতিবেদন দাখিল করতে স্থানীয় সরকার মন্ত্রনা-লয়ের উপ সচিব(ডিডিএলজি) রফিকুল ইসলামকে দায়িত্ব দেয়া হয়। তিনি দুই কার্যদিবসের মধ্যে তদন্ত করে সোমবার(১৬ নভেম্বর) বিকেলে ৩৭ পাতার তদন্ত প্রতিবেদন জমা দিয়েছেন। তদন্ত প্রতিবেদনে সরকারী কর্মকর্তা কর্মচারী ও জনপ্রতিনিসহ অনেকের লিখিত বক্তব্যের কপি সংযোজন করা হয়েছে। তদন্ত প্রতিবেদনটি সোমবার বিকেলেই স্থানীয় সরকার মন্ত্রনালয়সহ সংশ্লিষ্ট মন্ত্রনালয়গুলোতে পাঠানো হয়েছে।
ইউএনওকে হত্যার হুমকী ও অশ্রাব্য ভাষায় গালমন্দের সত্যতা মিলেছে কি না?  এমন প্রশ্নের জবাবে জেলা প্রশাসক আবু জাফর বলেন, অনেক কিছু বিষয় তদন্ত প্রতিবেদনে অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে। যা ঊর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষ বরাবরে পাঠানোর কারনে বলা যাচ্ছে না। মন্ত্রনালয় তদন্ত প্রতিবেদন দেখে পরবর্তি যা নির্দেশনা দিবেন। সেভাবে পরবর্তি ব্যবস্থা নেয়া হবে।
এ দিকে সোমবার(১৬ নভেম্বর) সকাল ১১ টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত পুলিশী নিরাপত্তা নিয়ে সরকারী কাজে অফিসের বাহিরে ছিলেন ইউএনও । এ সময় পরিচিত ও অপরিচিত কয়েকজন তার পিছনে মোটর সাইকেল নিয়ে অযথা ঘুরাফেরা করেন বলে জানান আদিতমারী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা(ইউএনও) মুহাম্মদ মনসুর উদ্দিন। তবে নিরাপত্তা পর্যাপ্ত রয়েছে বলেও দাবি করেন তিনি।
এর আগে বৃহস্পতিবার (১২ নভেম্বর) ইউএনওসহ ১৮জন অফিসারের দায়ের করা অভিযোগে প্রকাশ, আদিতমারী উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ফারুক ইমরুল কায়েস নির্বাচিত হওয়ার পর থেকে বিধিবিধান ও নীতিমালা লংঘন করে কাজের জন্য চাপ প্রয়োগ করে আসছেন। এর ব্যত্যয় ঘটলে সেই দফতরের কর্মকর্তাকে অশ্রব্য ভাষায় গালমন্দসহ প্রাণনাশের হুমকিও দেন চেয়ারম্যান।
উপজেলা পরিষদের বিভিন্ন কর্মকাণ্ড, ভিজিডি, মাতৃত্ব ভাতা, কৃষি প্রণোদনা, সামাজিক নিরাপত্তা বেষ্টনীর সুবিধাভোগীর তালিকায় নিজের অংশ দাবি করেন চেয়ারম্যান। বিধি বহির্ভূতভাবে পছন্দের ঠিকাদারকে কাজ না দেওয়ায় এবং প্রাক্কালন কাজ শেষ না হতেই বিল পরিশোধ না করায় সাম্প্রতিক সময় উপজেলা প্রকৌশলী ও সহকারী প্রকৌশলীকে রুমে বেঁধে পেটানোর হুমকি দেন চেয়ারম্যান।
শুধু তাই নয়, তার কথামত কাজ না করায় একজন নারী কর্মকর্তাকে বহিরাগতদের দিয়ে মানহানির ঘটনা ঘটানোর হুমকি দিয়েছেন বলেও অভিযোগে উল্লেখ করা হয়। সব দফতরের কর্মকর্তাদের সঙ্গে ঘটে যাওয়া অপ্রীতিকর ঘটনা তুলে ধরা হয় অভিযোগে।
অভিযোগে আরো বলা হয়, বৃহস্পতিবার (১২ নভেম্বর) মাসিক সমন্বয় সভায় ভিজিডি ও মাতৃত্ব ভাতার তালিকায় নিজের অংশ দাবি করেন উপজেলা চেয়ারম্যান। যা বিধি সম্মত না হওয়ায় ইউএনও না- কোচ করে দেন। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে সভা অসমাপ্ত রেখে চলে যান চেয়ারম্যান। এরপর চেয়ারম্যান ইউএনও অফিসের সিসিটিভি ক্যামেরা লোক দিয়ে খুলতে গেলে তার ছবি তোলেন ইউএনও মুহাম্মদ মনসুর উদ্দিন। একইসঙ্গে ক্যামেরা খুলে ফেলার কারণ জানতে চাইলে ইউএনওকে অশ্রাব্য ভাষায় গালমন্দ করা হয় ‘(বেশি কথা বললে পিটিয়ে নরসিংদী পাঠিয়ে দেবো। উপজেলা পরিষদ কি তোর বাবার সম্পত্তি, উপজেলা পরিষদ কি তুই চালাবি?)’। এভাবে গালমন্দ করা হয় বলেও অভিযোগে উল্লেখ করা হয়েছে।
চরম উত্তেজিত হয়ে উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মোবাইলে কল করে তার দলের লোকদের ডাকলে ভীতিকর পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়। খবর পেয়ে থানা পুলিশ এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করেন। ঘটনার পর থেকে উপজেলা পরিষদ চত্বরে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। ঘটনায় ওই দিন রাতে ইউ এনওসহ ১৮জন অফিসার উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে জেলা প্রশাসক বরাবরে গণ-স্বাক্ষরিত একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন। যার স্মারক নং ০৫.৪৭.৫২০২.০০০.০২. ০৮৩. ২০- ৭৬৪। যার অনুলিপি বিভিন্ন দফতরে পাঠানো হয়।
নিজের ও পরিবারের নিরাপত্তা চেয়ে রোববার(১৫ নভেম্বর) চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে আদিতমারী থানায় জিডি(নং৫৫৮) করেন ইউএনও মুহাম্মদ মনসুর উদ্দিন। একই দিন যৌথ স্বাক্ষরীত উপজেলার রাজস্ব তহবিলের ব্যাংক হিসাবের ১৯টি চেকের পাতা ছিঁড়ে ফেলেন উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ফারুক ইমরুল কায়েস। যা নিয়েও আদিতমারী থানায় জিডি(নং ৫৫৯) করেন উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যানের স্টানোটাইপিষ্ট হাবিবুর রহমান।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

- Advertisment -

Most Popular

স্কুলে আসছে লটারির মাধ্যমে ভর্তি !

দেশে করোনাভাইরাস সংক্রমণ পরিস্থিতির কারণে স্কুলের সব শ্রেণীতে পরীক্ষার বদলে লটারির মাধ্যমে ভর্তি করা হবে বলে সিদ্ধান্ত নিয়েছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়। শিক্ষামন্ত্রী দীপু মনি একটি...

মা হতে চলেছেন চিত্রনায়িকা শবনব বুবলী !

চিত্রনায়িকা শবনব বুবলী দীর্ঘদিন ধরে লাপাত্তা। গুঞ্জন রয়েছে, তিনি বর্তমানে বিদেশে রয়েছেন। এও গুঞ্জন রয়েছে, বুবলী অন্তঃসত্ত্বা। তিনি নাকি শাকিব খানের সন্তানের মা হতে...

হার্ট অ্যাটাকে হাসপাতালে অভিনেত্রী সুজাতা !

ঢাকাই চলচ্চিত্রের জনপ্রিয় অভিনেত্রী সুজাতাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। বুধবার (২৫ নভেম্বর) নগরীর ন্যাশনাল হার্ট ফাউন্ডেশনে ভর্তি করা হয় তাকে। এ তথ্য নিশ্চিত করে শিল্পী...

করোনাভাইরাস: দেশে গত ২৪ ঘন্টায় আরো ৩৯ জনের মৃত্যু !

দেশে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে আরও ৩৯ জনের মৃত্যু হয়েছে। এছাড়া, গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে ২ হাজার ১৫৬ জন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। এ নিয়ে...

Recent Comments