চাঁপাইনবাবগঞ্জের চাঞ্চল্যকর নয়ন হত্যা মামলা ॥ বাদীকে হুমকী

0
84

চাঁপাইনবাবগঞ্জ প্রতিনিধি ॥ চাঁপাইনবাবগঞ্জ পৌর এলাকার ১৫ নম্বর ওয়ার্ডের নয়ন হত্যা মামলার আসামীদের গ্রেফতার, সঠিক তদন্ত এবং বিচারের দাবীতে সংবাদ সম্মেলন করেছে ভূক্তভোগী মা-বাবা ও এলাকাবাসী।

মঙ্গলবার সকালে এলাকাবাসীর উদ্যোগে স্থানীয় একটি মাদ্রাসায় এই সংবাদ সম্মেলন হয়। এলাকাবাসীর পক্ষে সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন স্থানীয় মোঃ বাবলু হক।

এসময় নিহত নয়নের পিতা মোঃ লিয়াকত আলী, মাসহ অন্যরা। নির্মম হত্যাকান্ডেরশিকার নয়নের বাবা- মাসহ এলাকাবাসীর অভিযোগ-চাঁপাইনবাবগঞ্জে চাঞ্চল্যকর নয়ন হত্যা মামলার এজাহারভুক্ত আসামীদের গ্রেফতার করছেনা পুলিশ।

উচ্চ আদালতের আগাম জামিনের মেয়াদ শেষ হলেও আসামীরা প্রকাশ্যে ঘুরছে। শহরের বিভিন্ন স্থানে প্রকাশ্যে ঘুরাফিরা করলেও পুলিশ দেখেও না দেখার ভান করছে বলে অভিযোগ করেন নয়নের বাবা-মা।

মঙ্গলবার সকালে নবাবগঞ্জ পৌরসভার ১৫ নং ওয়ার্ডের কলোনী পাড়ায় এক সংবাদ সম্মেলনে এসব অভিযোগ করেন নয়নের পিতা মোঃ লিয়াকত আলী। এসময় নিহত নয়নের মা এবং এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন। তবে পুলিশ বলছে, আসামীরা উচ্চ আদালতের জামিনে থাকায় গ্রেফতার করা যাচ্ছেনা।

নিহত নয়নের মা-বাবার অভিযোগ, বর্তমান ক্ষমতাসিন দলের প্রভাবশালী নেতাদের এবং আসামীদের সাথে যোগসাজস করে পুলিশ মোট ৮জন আসামীর মধ্যে ৪জনকে গ্রেফতার করেছে এবং উচ্চ আদালতের আদেশে আসামীরা প্রকাশ্যে ঘুরে বেড়াচ্ছে এবং নানাভাবে হুমকী-ধামকী দিচ্ছে আসামীরা ও তাদের লোকজন।

অন্যদিকে, ঘটনার সঠিক তদন্ত হচ্ছে না এবং মূল আসামীদের বাঁচানোর চেষ্টা করছে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা এস.আই আশিষ বলে অভিযোগ নয়নের বাবা- মা’র। নয়ন হত্যার সঠিক তদন্ত, আসামীদের গ্রেফতার এবং দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবী করেন নয়নের মা, বাবা ও এলাকার নারী-পুরুষরা।

এসময় জেলার বিভিন্ন প্রিন্ট ও ইলেক্ট্রনিক মিডিয়াকর্মীসহ স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন। জানা গেছে, এবছর পবিত্র ঈদুল আজহার দিন সন্ত্রাসীদের হাতে নিহত হন নয়ন।

সেই দিনেই সদর মডেল থানায় ১০ জনের নাম উল্লেখ করে মামলা করে নিহত নয়নের পিতা লিয়াকত আলী। পুলিশ অভিযান চালিয়ে ৬ জনকে গ্রেফতার করলেও মুল আসামী দের গ্রেফতার না করায় ক্ষোভ জানিয়েছে নয়নের পিতা-মাতা ও এলাকাবাসী।

সংবাদ সম্মেলনে লিয়াকত আলী ক্ষোভের সাথে বলেন, জেলা আওয়ামীলীগের ২ জন নেতা আসামীদের পক্ষ নেয়ায় বাকীদের গ্রেফতার করছেনা পুলিশ। নয়নের পিতা লিয়াকত আলী জানান, যে কয়জন এখনো গ্রেফতার হয়নি, তারা হাইকোর্ট হতে ১ মাসের আগাম জামিন নিয়েছে।

আগাম জামিনের মেয়াদ শেষ হলে তদন্তকারী কর্মকর্তাকে জানানো হলেও তাদের গ্রেফতার করেনি। নেতাদের চাপে তদন্ত রিপোর্টেও ওদেরকে বাঁচানোর চেষ্টা চলছে দাবি করে নিহত নয়নের পিতা সুষ্ঠ ও নিরপেক্ষ তদন্ত করে আসামীদের সর্বোচ্চ শাস্তির দাবি জানান।

সংবাদ সম্মেলনে নিহত নয়নের মা কান্নাজড়িত কন্ঠে বলেন, আমার ছেলেকে যারা অন্যায় ভাবে হত্যা করেছে, তাদের ফাঁসি চাই। এসময় এলাকাবাসী জানায়, নয়ন একজন ভাল, ন¤্র-ভদ্র ছেলে ছিল। তার মত ছেলে এলাকায় খুব কম আছে। নয়ন হত্যাকারী আসামীদের ফাঁসির জোর দাবি জানান এলাকাবাসী।

এদিকে, নয়ন হত্যা মামলার তদন্ত কর্মকর্তা এস.আই আশিষ জানান, সঠিকভাবেই তদন্ত করা হয়েছে। ছয়জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে, এরমধ্যে চারজন এহাজারভুক্ত। বাকী দুইজনকে সন্দেহভাজন হিসেবে গ্রেফতার করা হয়েছে। এজাহারভুক্ত বাকী আসামীরা উচ্চ আদালতের জামিনপ্রাপ্ত হওয়ায় তাদেও গ্রেফতার করা যাচ্ছেনা।

এস.আই আশিষ আরও জানান, মামলার আইনী কার্যক্রম সঠিকভাবেই চলছে। নয়ন হত্যাকান্ডের জড়িতদের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে, সময়মত আদালতে প্রতিবেদন দেয়া হবে বিচারের জন্য।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here