চাঁপাইনবাবগঞ্জে নির্বাচন পরবর্তী সহিংসতার শিকার ৫ পুলিশ ॥ আটক ১৫

0
158

 

চাঁপাইনবাবগঞ্জ প্রতিনিধি ॥ চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর উপজেলার ঝিলিম ইউনিয়নে নির্বাচন পরবর্তী সহিংসতায় পুলিশের ওপর হামলার ঘটনায় ৫ পুলিশ আহত হয়েছেন। বৃহস্পতিবার বিকেলে ওই ইউনিয়নের হোসেনডাইং এলাকায় এ ঘটনায় অভিযান চালিয়ে ১৫জনকে আটক করেছে পুলিশ।

পুলিশ সুত্রে জানা গেছে, ঝিলিম ইউনিয়ন পরিষদের ৮নং ওয়ার্ডের মোরগপ্রতীকের প্রার্থী মুনিরুল ইসলাম ও তালা প্রতীকের প্রার্থী আব্দুল কুদ্দুস সেরাতাল আলীর লোকজন নির্বাচনি ফলাফলের জের ধরে টিউবওয়েল প্রতীকের প্রার্থী শরিয়ত আলীর বাড়িতে হামলা চালায়।

এ সংঘর্ষের খবর পেয়ে পুলিশের একটি দল ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করার চেষ্টা করে। পরে ওই দুগ্রুপের লোকজন পাল্টা পুলিশের উপর হামলা করে। এ সময় ৫ জন পুলিশ সদস্য আহত হয়।

পুলিশের উপর হামলার খবর পেয়ে আরও কয়েকটি দল ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ আনেন। শরিয়ত আলী জানান, আমি ৯৯৯ কল দিয়ে পুলিশকে বিষয়টি অবগত করি। পুলিশ ঘটনাস্থলে আসলে, তারা পুলিশের উপর হামলা চালায়।

এ বিষয়ে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মাহবুব আলম খান জানান, চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর উপজেলার ঝিলিম ইউনিয়নে নির্বাচন পরবর্তী সহিংসতায় পুলিশের ওপর হামলার ঘটনায় ৫ পুলিশ আহত হয়েছেন। তার মধ্যে ২জন চাঁপাইনবাবগঞ্জ আধুনিক হাসপাতালে ভর্তি আছেন।

তাদের অবস্থা গুরুতর হলেও আশঙ্কাজনক নয়। তিনি আরও বলেন, এ ঘটনায় এখন পর্যন্ত ১৫ জনকে আটক করা হয়েছে। বাকিদের আটক করতে পুলিশ অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (নবাবগঞ্জ সার্কেল) আতিউর রহমানের নেতৃত্বে অতিরিক্ত পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। এ ঘটনায় রাত ১০টা পর্যন্ত ১৫ জনকে আটক করে পুলিশ। এ ঘটনায় হোসেনডাঙ্গা গ্রামে থমথমে পরিস্থিতি বিরাজ করছে।

ঘটনার পর পরাজিত প্রার্থী মনিরুল ইসলাম মনি ও আব্দুল কুদ্দুস সেরাতাল পলাতক
রয়েছে। জেলা হাসপাতালের জরুরি বিভাগের মেডিকেল অফিসার ডা. সায়েদা
সুলতানা জানান, তিনজন পুলিশ সদস্যকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছিল।

তাদের মধ্যে দুইজনের অবস্থা খুবই গুরুতর। শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত হাসপাতালে একজন ভর্তি রয়েছে বলে নিশ্চিত করেছেন চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ মো. মোজাফ্ধসঢ়;ফর হোসেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here