চতলিয়ায় ভোট চাইতে গিয়ে নারী কর্মীরা হামলার শিকার

0
85

 

শরীয়তপুর প্রতিনিধি: শরীয়তপুর সদর উপজেলার চিতলিয়া ইউনিয়ন পরিষদে আগামী ১৫ জুন ভোট গ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে। নির্বানকে ঘিরে চলছে প্রার্থী ও প্রার্থীর সমর্থকদের প্রচার প্রচারণা।

শুক্রবার ঘোড়া প্রতিকের চেয়ারম্যান প্রার্থী হারুন অর রশিদ হাওলাদারের পক্ষে তার মেয়ে রিমা কয়েকজন নারী কর্মী নিয়ে নির্বাচনী প্রচারনায় বের হয়। দুপুরে ইউনিয়নের ঝাউচর এলাকার বাবুল ঢালীর (৪২) বাড়িতে ভোট চাইতে গেলে হামলার শিকার হয় তারা।

স্থানীয়দের সহায়তায় প্রচার কর্মীরা রক্ষা পেলেও শেষ রক্ষা হয়নি হামলা কারী বাবুল ঢালীর। সংবাদ পেয়ে আংগারিয়া ফাড়ির পুলিশ তাকে আটক করে নিয়ে আসে। প্রার্থীর মেয়ে রিমা বলেন, আমার ভাই মিথ্যা মামলায় হাজতে রয়েছে।

আগামী ১৫ জুন নির্বাচন তাই কয়েকজন মহিলা কর্মী নিয়ে মানুষের দ্বারে দ্বারে আমার পিতার জন্য ভোট প্রার্থনা করি। আমি জানতাম না বাবুল ঢালী আনারস প্রতিকের সমর্থক।

দুপুরে তার বাড়িতে ভোট চাইতে গেলে আমাদের বাজে ভাষায় গালাগালি করে ঘর থেকে বটি দা নিয়ে বের হয়। সে আমাদের কোপানোর জন্য দৌড়ে আসলে ডাক চিৎকার করতে করতে আমরা দৌড়ে পালাই। বিষয়টি পুলিশে অভিযোগ করলে আংগারিয়া ফাড়ি পুলিশ ঘটনাস্থলে যায়।

পুলিশ দেখে হামলার চেষ্টাকারী ঘরে ঢুকে দরজা বন্ধ করে বসে থাকে। সেখান থেকে পুলিশ তাকে আটক করেছে। আমরা ভোট চাইতে গেলেই আনারস প্রতিকের লোকজন খারাপ আচরণ করেন। আমরা সুষ্ঠু ভোট নিয়ে শঙ্কায় আছি।

আটক বাবুল ঢালী জানায়, সে আনারস প্রতিকের সমর্থক। তবে ষড়যন্ত্র মূলক ঘটনায় আজ সে আটক হয়েছে। বাবুল ঢালী ভোট চাইতে যাওয়া মহিলাদের সাথে খারাপ আচরণ করেনি।

আঙ্গারিয়া ফাড়ির এটিএস আই আকরামুজ্জামান জানায়, এই ঘটনা ঘিরে এলাকায় উত্তেজনা বিরাজ করতেছিল। পরিস্থিতি শান্ত রাখতে উর্ধ্বতণ কর্মকর্তার পরামর্শে বাবুল ঢালীকে আটক করা হয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here