ধাইনগরের সাবেক চেয়ারম্যান স্বৈরাচার তাবারিয়া চৌধূরী কারাগারে !

0
148

 

চাঁপাইনবাবগঞ্জ প্রতিনিধি ॥ চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জ উপজেলার ধাইনগর ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান আকম তাবারিয়া চৌধুরীকে কারাগারে প্রেরণ করেছে বিজ্ঞ আদালত।

একটি জালিয়াতি মামলায় মঙ্গলবার দুপুরে এক নারীসহ তাবারিয়া চৌধুরীকে কারাগারে প্রেরণের নির্দেশ দেন সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট-১ নাজমুল হোসেন।

চেয়ারম্যান থাকাকালে জালিয়াতির মাধ্যমে ধাইনগর ইউনিয়নে মহিলা গ্রাম পুলিশ নিয়োগের বিষয়ে তৎকালীন সময়ে (২০১৯ সালে) সংবাদ প্রকাশ করে জেলার বহুল প্রচারিত ‘দৈনিক চাঁপাই দর্পণ’ পত্রিকা। এনিয়ে তোলপাড় শুরু হয়। আদালতে মামলা দায়ের হয়।

মামলার বাদীর আইনজীবি এ্যাড. নুরুল ইসলাম সেন্টু বলেন, আ.ক.ম তাবারিয়া চৌধুরী ধাইনগর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান থাকাকালীন আক্তারী খাতুন নামের এক নারীর বয়স কমিয়ে জাল-জালিয়াতির আশ্রয় নিয়ে তার ইউনিয়নের ৬নং ওয়ার্ডের মহিলা গ্রাম পুলিশ পদে ২০১৯ সালের ১ আগষ্ট নিয়োগ দেন। আক্তারী খাতুনের জাতীয় পরিচয়পত্রে জন্ম তারিখ থাকলেও তাকে নিয়োগ দেয়া হয় ১৯৯৫ সালের ২৬ মে জন্ম তারিখ দেখিয়ে।

এ জালিয়াতির বিরুদ্ধে একই ইউনিয়নের সাবেক মেম্বার গুপ্তমানিক গ্রামের মৃত জয়নাল মন্ডলের ছেলে আব্দুল কাদের মন্ডল- চেয়ারম্যান তাবারিয়া এবং আক্তারী খাতুনকে আসামী করে বিজ্ঞ আদালতে একটি মামলা দায়ের করেন। মামলা নং সিআর-৭৩৮/১৯ (শিবগঞ্জ)। মামলাটি তদন্তভার শিবগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসারকে প্রদান করেন বিজ্ঞ আদালত।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার তদন্তভারের দায়িত্ব দেন উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ কর্মকর্তা সুনাইন বিন জামানকে। তার প্রতিবেদনে বাদীর অভিযোগ প্রমানিত না হওয়ায় তাবারিয়া এবং আক্তারীকে খালাস দেন বিজ্ঞ আদালত।

পরবর্তীতে বাদীর আইনজীবি নারাজি আবেদন করলে বিজ্ঞ আদালত সিআইডিকে তদন্ত করার নির্দেশ দেন। সিআইডি’র পক্ষে মামলাটি তদন্ত করেন, উপ-পরিদর্শক মামুনুর রশীদ।

সিআইডি’র তদন্তে বাদীর অভিযোগের সত্যতা প্রমানিত হলে গত বছরের (২০২১ সাল) ২০ ডিসেম্বর তাবারিয়া এবং আক্তারী খাতুনের নামে ওয়ারেন্ট ইস্যু করেন বিজ্ঞ আদালত।

মঙ্গলবার বাদীর আইনজীবিকে না জানিয়ে ওই মামলায় আত্মসমর্পন করে জামিন চায় তাবারিয়া চৌধুরী ও আক্তারী খাতুনের আইনজীবি।

কিন্তু বিজ্ঞ আদালত তাদের জামিন না মঞ্জুর করে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ প্রদান করেন। এঘটনায় তাবারিয়া চৌধুরীর এলাকায় জনমনে স্বস্তি ও প্রতিক্রিয়া
সৃষ্টি হয়েছে। অনেকে আনন্দ উল্লাস করে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here