ইএসডিও-এসইপি প্রকল্পের ক্ষুদ্র উদ্যোগক্তাদের পরিবেশগত সচেতনতা ও সনদায়ন বিষয়ক প্রশিক্ষণ কর্মশালা

0
303
এম এ কাহার বকুলঃ স্টাফ রিপোর্টারঃ আজ মঙ্গলবার সকাল ৯.০০ ঘটিকা থেকে সারা দিন ব্যাপি বোচাগঞ্জ উপজেলা পরিষদ হল রুম, বোচাগঞ্জ, দিনাজপুর, গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের বিশেষায়িত প্রতিষ্ঠান পল্লী কর্ম-সহায়ক ফাউন্ডেশন (পিকেএসএফ) এর সহায়তায় এবং বিশ্বব্যাংক এর অর্থায়নে বাস্তবায়ন সহযোগী সংস্থা ইকো-সোশ্যাল ডেভলপমেন্ট অর্গানাইজেশন (ইএসডিও) কর্তৃক আয়োজিত সাসটেইনেবল এন্টারপ্রাইজ প্রজেক্ট (এসইপি) এর উপ প্রকল্পঃ “হাস্কিং মিলের পরিবেশের দূষণ কমানোর মাধ্যমে সাধারণ মানুষের প্রচলিত খাবার হিসেবে ফুল গ্রেইন চাল প্রক্রিয়াজাতকরণ” ক্ষুদ্র উদ্যোগক্তাদের প্রকল্পের পরিবেশগত সচেতনতা ও সনদায়ন বিষয়ক প্রশিক্ষণ কর্মশালা দিন ব্যাপি অনুষ্ঠিত হয়।
ক্ষুদ্র উদ্যেগক্তাদের পরিবেশগত সচেতনতা ও সনদায়ন বিষয়ক সচেতনতামূলক প্রশিক্ষণ উদ্ভোধন করেন জনাব এ্যাড. জুলফিকার হোসেন, উপজেলা চেয়ারম্যান, বোচাগঞ্জ, দিনাজপুর।
বোচাগঞ্জ উপজেলা চেয়ারম্যারনব জনাব এ্যাড. জুলফিকার হোসেন বলেন, বর্তমান সময়ে হাস্কিং মিলের ব্যবসায়িক অবস্থা ভালো নয়। ইএসডিও-এর এই প্রকল্প অত্যন্ত সময়োপযোগী, এর ফলে হাস্কিং মিল্গুলোর পরিবেশগত অবস্থার উন্নতি হবে, শ্রমিকদের স্বাস্থ্য সুরক্ষা নিশ্চিত হবে এবং প্রকল্পের আওতায় শ্রমিকদের হাস্কিং মিল ছেড়ে যাওয়ার প্রবণতা দূর হবে।
হাস্কিং মিল মালিকদের প্রকল্প সহায়তার ফলে আর্থিক অবস্থার উন্নতি হবে এবং অটো রাইস মিলের সাথে প্রতিযোগিতায় টিকে থাকার সক্ষমতা বৃদ্ধি পাবে। তিনি ইএসডিও কর্তৃপক্ষকে এই প্রকল্পের উদ্যোগ গ্রহণের জন্য ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন এবং সর্বাত্মক সহযোগিতা প্রদানের আশ্বাস প্রদান করেন।
দিন ব্যাপি এই প্রশিক্ষণে, হাস্কিং মিল গুলোর পরিবেশ বিষয়ে রির্সোস পার্সন হিসাবে পরিবেশ বিভাগের পক্ষ থেকে সিনিয়র কেমিস্ট এ কে এম সামিউল আলম কুরসি দুটি সনদের উল্লেখ করেন। ১। অবস্থানগত সনদপত্র, ২। পরিবেশগত ছাড়পত্র
অবস্থানগত সনদপত্রের ক্ষেত্রে প্রকল্পের অবস্থান, ঠিকানা, দাগ নং, খতিয়ান, মৌজা-ম্যাপ উল্লেখ পূর্বক ২ কি মি ব্যাসার্ধের মধ্যে সরকারী জমি বা বন আছে কি না তা যাচাই পূর্বক অবস্থানগত সনদপত্র দেওয়া হয়।
পরিবেশগত ছাড়পত্রের ক্ষেত্রে কি কি কাগজপত্র প্রয়োজন তা উপস্থাপন করেন। যেমন-আবেদন পত্র, স্থানীয় কর্তৃপক্ষের অনাপত্তী পত্র, প্রসেস ফ্লো-চার্ট (দূষকের উৎস সহ), লে-আউট প্ল্যান, জমি ও পানির ব্যবহারের তথ্য, কাঁচামাল ও উৎপন্ন দ্রব্য, আয়কর, ভ্যাট, ই-টিন, ফায়ার লাইসেন্স, নির্দিষ্ট কোডে সরকারী চালান ফি অথবা নবায়ন ফি সংযুক্ত করে সরেজমিন তদন্ত পূর্বক ব্যবস্থা গ্রহণের আশ্বাস প্রদান করেন এবং সরকারী সেবা পেতে কোন হয়রানির শিকার হলে তার প্রতিকারের জন্য সরাসরি যোগাযোগের পরামর্শ দেন।
উপজেলা খাদ্য কর্মকর্তা (বোচাগঞ্জ) – ফুল গ্রেইন চালের উপকারিতা উল্লেখ করে বলেন, এ চাল ভিটামিন-বি যুক্ত ও আঁশ সমৃদ্ধ যা শরীরের পুষ্টি উপাদান পূরণ করতে সহায়তা করে, হজমে সহযোগিতা করে এবং ভাত খেতেও সুস্বাদু।
প্রকল্পের লক্ষ্য, উদ্দেশ্য ও ফুল গ্রেইন চাল বিষয়ে আলোচনা কালীন সময়ে মো: আবু বককর সিদ্দিক আবু ইএসডিও-এসইপি প্রকল্পের প্রজেক্ট মানেজার বলেন “ফুল গ্রেইন চাল হচ্ছে ধানের তুষ ছাটানোর পরে চালের উপরে আঁশ যা-প্রোটিন, ভিটামিন বি-কমপ্লেক্স, খনিজ লবণ-আয়রণ, পটাশিয়াম, ক্যালসিয়াম, ম্যাংগানিজ ও সিলেনিয়াম সমৃদ্ধ পুষ্টিগুণে ভরপুর আবরণযুক্ত চালই ফুল গ্রেইন চাল”। স্বাস্থ্য সুরক্ষায় উপকরণ সমূহ এবং পরিবেশ কার্ড, মোঃ কামরুল ইসলাম, পরিবেশগত অফিসার, ইএসডিও-এসইপি, দিনাজপুর।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here