ঝিনাইদহে অস্ত্র মামলায় যুবকের ১৭ বৎসরের জেল !

0
46

স্টাফ রিপোর্টার, ঝিনাইদহ- ঝিনাইদহে অস্ত্র মামলায় মনিরুল ইসলাম নামে এক যুবকের ১৭ বৎসরের জেল প্রদান করেছে ঝিনাইদহের সিনিয়র স্পেশাল ট্রাব্যুনাল জজ।

সোমবার এ রায় প্রদান করেন ঝিনাইদহের সিনিয়র স্পেশাল ট্রাব্যুনাল জজ আদাল-তের বিচারক মোঃ নাজিমুদ্দৌলা। মনিরুল ইসলাম ঝিনাইদহ সদর উপজেলার উত্তর কাস্টসাগরা গ্রামের মহিউদ্দিনের ছেলে।

আদালত সুত্রে জানা যায়, ২০১৭ সালের ৯ জানুয়ারী মনিরুল ইসলামের বাড়ীতে অস্ত্র মজুদ আছে। এমন সংবাদের ভিত্তিতে পুলিশ সেখানে অভিযান চালালে আসামী মনিরুল পালানোর চেষ্টা করে। পুলিশ এসময় তার তার শয়ন কক্ষ হতে আটক করে।

আটকরে এক পর্যায়ে জিজ্ঞাসাবাদ করলে মনিরুল তার শয়ন কক্ষের খাটের উপর বালিশের নীচ থেকে একটি দেশী তৈরী শার্টারগান ও তিন রাউন্ড গুলি বের করে। কিন্তু উক্ত অস্ত্র ও গুলির কোন কাগজ পত্র দেখাতে পারে না মনিরুল। ফলে ইহা অবৈধ বলে পরিগনিত হয়।

অবৈধ অস্ত্র রাখার দায়ে ঝিনাইদহ সদর থানায় এসআই ফজলুর রহমান বাদী হয়ে একটি মামলা দায়ের করেন মনিরুলের বিরুদ্ধে। এসআই শেখ মোঃ আনোয়ার হোসেন তদন্ত শেষে আসামীর বিরুদ্ধে চার্যশীট প্রদান করেন।

দীর্ঘ ৫ বছর ধরে মামলা চলার পর সোমবার ঝিনাইদহের সিনিয়র স্পেশাল ট্রাব্যুনাল জজ আদালতের বিচারক মোঃ নাজিমুদ্দৌলা ১৮৭৮ সালের অস্ত্র আইনের ১৯ (এ) ধারায় দোষী সাবস্ত করে দশ বছর সশ্রম কারাদন্ড এবং ১৯ (এফ) ধারায় দোষী সাব্বস্ত করে সাত বছরের সশ্রম কারাদন্ড করেন।

আসামী জামিনে থাকায় জেল হাজতে প্রেরন করেন বিচারক। রাষ্ট্র পক্ষের আইন জীবি ছিলেন মোঃ ইসমাইল হোসেন ও আসামী পক্ষের আইনজীবি ছিলেন এস.এম মশিয়ুর রহমান।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here