অব্যবস্থাপনার মধ্য দিয়ে চাঁপাইনবাবগঞ্জে শুরু বিজ্ঞান মেলা !

0
378

 

চাঁপাইনবাবগঞ্জ প্রতিনিধি ॥ চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর উপজেলায় নানা অব্যবস্থা-পনার মধ্যদিয়ে উদ্বোধন ছাড়ায় শুরু হয়েছে ২দিনব্যাপী ৪৩তম জাতীয় বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি সপ্তাহ এবং বিজ্ঞান মেলা।

সদর উপজেলা প্রশাসনের আয়োজনে বুধবার সকাল সাড়ে নয়টায় মেলার উদ্বোধন হবার কথা থাকলেও অতিথির অভাবে উদ্বোধন ছাড়ায় শুরু হয় বিজ্ঞান মেলা মেলায় ১৬টি স্টলে চাঁপাইনবাবগঞ্জ পৌরসভার ১৪টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ও একটি ক্লাব অংশগ্রহন করে।

অংশগ্রহনকারী প্রতিষ্ঠানগুলো হলো-নবাবগঞ্জ সরকারি কলেজ, নবাবগঞ্জ সরকারি মহিলা কলেজ, হরিমোহন সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়, নবাবগঞ্জ সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়, আলীনগর উচ্চ বিদ্যালয়, নামোশংকরবাটি উচ্চ বিদ্যালয়, গ্রীনভিউ উচ্চ বিদ্যালয়, শাহনেয়ামতুল্লাহ কলেজ, নবাবগঞ্জ সিটি কলেজ, নয়ানশুকা আরকে উচ্চ বিদ্যালয়, নবাবগঞ্জ উচ্চ বিদ্যালয়, হরিপুর বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়, হরিপুর ১নং উচ্চ বিদ্যালয়, রাজারামপুর হামিদুল্লাহ উচ্চ বিদ্যালয় ও গ্রীনভিউ কালেক্টরেট ক্লাব।

বুধবার সকাল সাড়ে নয়টায় বিজ্ঞান মেলার উদ্বোধন হবার কথা থাকলেও উদ্বোধন ছাড়ায় দুপুর একটায় ১ম দিনের মেলা সমাপ্ত হয়। সাড়ে নয়টা থেকে দুপুর পর্যন্ত কোন অতিথি বা উপজেলা প্রশাসনের শীর্ষ কর্মকর্তাদের মেলায় দেখা পাওয়া যায়নি।

দুপুর ১২টার দিকে উদ্বোধন ছাড়ায় শুরু হওয়া মেলা পরিদর্শন করেন, সদর উপ-জেলা সহকারী মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার পরিমল কুমার কুন্ডু ও সদর উপজেলা সমাজসেবা অফিসার নাছির উদ্দিন। মেলা সাড়ে নয়টায় উদ্বোধন করার কথা থাকলেও বেলা সাড়ে ১১টা পর্যন্ত অংশগ্রহনকারী শিক্ষার্থীদের মেলায় আসতে দেখা যায়।

মেলায় ছিলনা অংশ গ্রহনকারীদের জন্য কোন পানির ব্যবস্থা। এনিয়ে বেশ কয়েক জন অংশ গ্রহনকারী শিক্ষার্থী এবং শিক্ষককে ক্ষোভ প্রকাশ করতে দেখা যায়।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে এক শিক্ষক জানায়, শিক্ষার্থীদের যাতায়াতসহ অন্যান্য খরচ বাবদ কোন বরাদ্দ না থাকায় নিজ পকেটের টাকা খরচ করে আসতে হয়েছে মেলায়।

তারপরও মাত্র তিনদিন আগে নোটিশ করে মেলার কথা জানিয়ে শিক্ষার্থীদের আনতে বলা হয়েছে। যা খুবই কষ্টদায়ক। অংশগ্রহনকারী এক শিক্ষার্থী বলেন, মাত্র ২দিনের মধ্যে কোন জিনিস উদভাবন করা সম্ভব নয়। তারপরও জেলায় কোন ডিভাইস পাওয়া যায়না।

প্রয়োজনীয় ডিভাইস এবং অন্যান্য যন্ত্রাংশ রাজশাহী অথবা ঢাকা হতে আনতে হয়। অনেক সময় অনলাইনে অর্ডার দিয়ে প্রতারিত হতে হয়েছে। তাই এত স্বল্প সময়ে কোনকিছু উদ্ভাবন করা খুব কষ্টকর।

তারপরও শিক্ষকদের অনুরোধে বিজ্ঞান মেলায় অংশগ্রহন করতে পেরেছি বলে ওই ছাত্র সন্তুষ্টি প্রকাশ করে। অন্যদিকে এক শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের সহকারী শিক্ষক জানান, তার প্রতিষ্ঠান হতে শিক্ষার্থীরা মেলায় অংশগ্রহন করেছে।

তারা এখন খাবার পানি চাচ্ছে, কিন্তু কোথাও তিনি পানি পাচ্ছেন না। কাকে পানির কথা বলবেন তাকেও পাওয়া যাচ্ছেনা, বলে তিনি ক্ষোভ প্রকাশ করেন।

২দিনব্যাপী জাতীয় বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি সপ্তাহ এবং বিজ্ঞান মেলাস্থলে দেখা মিলে উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসের একাডেমিক সুপারভাইজার আব্দুল আলিমের। তিনি জানান, জেলা প্রশাসক মোঃ মঞ্জুরুল হাফিজ ব্যস্ত থাকায় তিনি মেলার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে আসেননি।

সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার ইফফাত জাহান কাজে বাইরে গেছেন। তাই উদ্বো-ধন ছাড়ায় জাতীয় বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি সপ্তাহ এবং বিজ্ঞান মেলা শুরু করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার আনুষ্ঠানিকভাবে মেলার সমাপনী ও পুরস্কার বিতরণ করা হবে।

পৌরসভার বাইরের শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ছাত্র-ছাত্রীদের করোনা ভ্যাকসিন টিকা প্রদান কার্যক্রম চলছে বিধায় চাঁপাইনবাবগঞ্জ পৌরসভাধীন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীদের অংশগ্রহনে বিজ্ঞান মেলার শুরু করা হয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here