সাটুরিয়ায় সৎভাইয়ের ধর্ষণে কিশোরী বোন  অন্তঃসত্ত্বা !

0
152
নিজস্ব প্রতিবেদক:  এক বছর যাবত সৎ ভাইয়ের ধর্ষণে ছোট বোন (১৪) অন্তঃসত্ত্বা হওয়ার চাঞ্চল্যকর ঘটনা ঘটেছে মানিকগঞ্জের সাটুরিয়া উপজেলার জালশুকা গ্রামে। ওই কিশোরী ও অভিযুক্ত ধর্ষক একই পিতার সন্তান।
বৃহস্পতিবার রাতে ধর্ষিতা কিশোরী স্থানীয়দের জানায়, এক বছরের বেশি সময় ধরে নিজের সৎ ভাইয়ের হাতে ধর্ষণের শিকার সে, ধর্ষণে বাধা দিতে গেলে মারধর করা হতো তাকে, বিয়ের প্রলোভন দিয়ে ওই কিশোরী মেয়েটিকে বিভিন্ন সময় নিজ ঘরে ধর্ষণ করত লম্পট সৎ ভাই সুজন মিয়া (২২)। সুজন পেশায় মিষ্টি দোকানের কর্মচারী।
তার মাকে বিষয়টি জানালেও কোন প্রতিকার পায়নি বলে অভিযোগ করেন কিশোরীটি।  বাবা কৃষক, মা আগে প্রবাসী ছিল এখন দিন মজুর। সম্প্রতি তার শারীরিক পরিবর্তন দেখা দিলে তার মা তাকে জিজ্ঞাসা করলে সে পুরো ঘটনা খুলে বলে।
ওই কিশোরীর মা তারাবানু বেগম বলেন, আমাদের অজ্ঞাতে সুজন আমার মেয়েকে ধর্ষণ করছে, পরীক্ষা করে দেখেছি বর্তমানে সে ৪ মাসের অন্তঃসত্ত্বা। অভিযুক্ত সুজনের বক্তব্য নিতে কোথাও খুঁজে পাওয়া যায়নি।
সুজনের পিতা মো. হাসান মিয়া বলেন, আমরা এলাকার মাতাব্বরদের কাছে বিষয়টি বলেছি তারা সমাধান করে দিবে বলছে। মুক্তিযোদ্ধা লীগ নেতা দাবীদার স্থানীয় গ্রাম্য মাতব্বর শামীম হোসেন  বলেন, আমরা এলাকায় বসে বিষয়টি সমাধানের চেষ্টা করছি, ইতিমধ্যে ষ্ট্যাম্প কিনে দুপক্ষের স্বাক্ষর নিয়েছি। এমন  অপরাধের বিচার আপনারা করতে পারেন কিনা প্রশ্ন করলে তিনি জানান, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান আবুল বাশার সমাধান করে দিয়েছেন।
এ ব্যাপারে সাটুরিয়া উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান মোঃ আবুল বাশার সব কিছু অস্বীকার করে বলেন, আমি এ বিষয়ে কিছুই জানি না।
সাটুরিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আশরাফুল আলম বলেন, এ ব্যাপারে কোন অভিযোগ পাইনি। অভিযোগ পেলে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here