শিবগঞ্জে ছাত্রীকে অপহরণের অভিযোগ

0
32

চাঁপাইনবাবগঞ্জ প্রতিনিধি ॥ চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জে বাল্যবিয়ে না দেয়ায় ৯ মাস ধরে খাতিজা আক্তার কিয়া (১৪) নামে ৯মশ্রেণির এক ছাত্রীকে অপহরণের অভিযোগ উঠেছে।

বৃহস্পতিবার দুপুরে ওই মেয়েকে উদ্ধার চেয়ে শিবগঞ্জ বাজারে সংবাদ সম্মেলন করেছে ভুক্তভোগী পরিবার।

লিখিত বক্তব্যে মেয়ের মা কমেলা বেগম বলেন, গত বছরের ১৩ মে বিকেলে শিবগঞ্জ বাজারে প্রাইভেটের উদ্দ্যেশে বাড়ি হতে বের হয়ে রাস্তায় অপহরণের শিকার হয় শিবগঞ্জ বালিকা উচ্চ বিদ্যা-লয়ের ছাত্রী খাতিজা আক্তার কিয়া।

এ নিয়ে আকাশ আলীসহ তিনজনের বিরুদ্ধে চাঁপাইনবাব গঞ্জ আদালতে একটি মামলাও করেন তিনি। মামলার তদন্তের দায়িত্ব পান শিবগঞ্জ থানার উপ-পরিদর্শক সোহেল রানা।

মামলা দায়েরের পর থেকে অজ্ঞাত পরিচয়ে বিভিন্ন ফোন থেকে প্রাণ নাশের হুমকি দেয়া হচ্ছে বলে সংবাদ সম্মেলনে অভিযোগ করেন। হুমকি দেয়ার ঘটনায় শিবগঞ্জ থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করা হয়।

লিখিত বক্তব্যে তিনি আরও বলেন, ২০২২ সালের নভেম্বরে খাতি-জা আক্তার কিয়ার সাথে বাল্যবিয়ের প্রস্তাব আসে উপজেলার মোবারকপুর ইউনিয়নের কালিচক গ্রামের মাহিদুরের ছেলেআকাশ আলীর (২০)।

কিন্তু মেয়ের বয়স তখন ১৩ বছর হওয়ায় বাল্যবিয়ে দিবেন না বলে সাফ জানিয়ে দেন তার মা কমেলা বেগম। এতে ছেলের পরিবার ক্ষুদ্ধ হয়ে মেয়েকে অপহরণ করে আকাশ আলীসহ তার স্বজনরা।

দীর্ঘ ৯ মাস পার হলেও মেয়ে উদ্ধার না হওয়ায় হতাশ পরিবার। একই সঙ্গে দ্রুত মেয়ের উদ্ধারে প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করেন তিনি।

অপহরণের শিকার খাতিজা আক্তার কিয়া উপজেলার শ্যামপুর ইউনিয়নের কালুপুর গ্রামের খাইরুল ইসলাম ও কমেলা বেগম দম্পতির মেয়ে।

সংবাদ সম্মেলনে পরিবারের সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন। এ বিষয়ে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা সোহেল রানা জানান, ঘটনাটি মূলত অপহরণ নয়, প্রেম জনিত।

তবুও মামলার প্রেক্ষিতে বিভিন্ন প্রযুক্তির মাধ্যমে আসামিদের গ্রেফতার ও মেয়ে উদ্ধারের চেষ্টা চলছে।

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here