Wednesday, January 27, 2021
Home অপরাধ জগত সখিপুরে ধারের টাকা চাওয়ায় পাওনাদারের ওপর মামলা

সখিপুরে ধারের টাকা চাওয়ায় পাওনাদারের ওপর মামলা

ভেদরগঞ্জ (শরীয়তপুর) প্রতিনিধি: শরীয়তপুরের সখীপুরে ব্যবসা করার কথা বলে নিজের আপন বোনের স্বামীর কাছ থেকে ৫ লক্ষ টাকা ধার নিয়ে সে টাকা ফেরত না দিয়ে উল্টো ভগ্নিপতিকে পিটিয়ে গুরুতর জখম করা হয়। সখিপুরেরর কাঁচিকাটায় জিংকি এ ঘটনায় ঘটে।
স্থানীয় সুত্রে জানা যায়, প্রায় দুই বছর আগে মরিচ এবং পাট ব্যবসায়ের কথা বলে বোন-জামাই বিল্লাল বেপারীর কাছ থেকে ৫ লক্ষ টাকা ধার নিয়েছিলো সখিপুরের কাঁচিকাটার জবরদখল গ্রামের গিয়াসউদ্দিন সরদারের ছেলে আল আমিন সরদার(৩৫) ব্যবসার কথা বলে ধার নিয়ে ধারের টাকায় জুয়া খেলে হেরে যায় সে। বিল্লাল বেপারী টাকা ফেরত দিতে বারবার তাগাদা দিলে আল আমিন কিছুদিনের মধ্যেই দিয়ে দেয়ার কথা বলে। কিন্তু বছর পেরিয়ে গেলেও কোন টাকা আল আমিন ফেরত দেয় নি।
পরিস্থিতি ঘোলাটে হলে বিল্লাল গত ৩ জানুয়ারী রবিবার দুপুরের খাবার খাওয়ার সময় তার স্ত্রীকে বিষয়টি জানায়। এ নিয়ে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে কথা-কাটাকাটি হয়। বিল্লালের স্ত্রী রাবেয়া বেগম তার ভাইকে মুঠোফোনে টাকা ফেরত দিতে চাপ দেয়। কিন্তু আল আমিন এই মূহুর্তে কোন টাকা দিতে পারবে না বলে জানায়। টাকার কথা বোনকে বলায় আল আমিন বিল্লালকে মুঠোফোনে হুমকি দিয়ে শাসায় এবং বোনকে দিয়ে নারী নির্যাতন এবং যৌতুকের মামলার ভয় দেখায়।
এরই ধারাবাহিকতায় গত বরিবার সন্ধ্যায় দেশীয় অস্ত্র নিয়ে আল আমিন সরদার তার দুই ভাই ইব্রাহিম সরদার এবং ইয়াসিন সরদারসহ ১০/১২ জনের সন্ত্রাসী বাহিনী নিয়ে বিল্লাল বেপারীর বাসায় হামলা করে বোন আর দুই বছরের ভাগ্নিকে তুলে নিয়ে যায় তারা।
এ সময় বাড়ির লোকজন বাঁধা দিতে গেলে মাথায় গুরুতর রক্তাক্ত জখম হয় বিল্লাল বেপারীসহ তিনজন। প্রতিবেশিরা গুরুতর আহত বিল্লাল বেপারীকে উদ্ধার করে স্থানীয় স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে সেখানেও আল আমিনের সন্ত্রাসী বাহিনী তাদের ধাওয়া করে। এমন ঘটনায় স্থানীয়দের মাঝে ব্যপক প্রতিক্রিয়া দেখা যায়।
স্থানীয়রা জানায়, সন্ত্রাসী আল আমিন সরদার নিজের স্ত্রীকে হত্যার দায়ে দীর্ঘদিন কারাগারে ছিলেন। জামিনে মুক্তি পেয়ে তিনি আরো বেপরোয়া হয়ে উঠেছেন। জুয়ায় আসক্ত আল আমিন এবং তার দুই ভাই মাদক ব্যবসাসহ আরো নানান অপকর্মে জড়িত।
গুরুতর আহত বিল্লাল বেপারীর ভাই জানান, ধারের টাকা ফেরত চাইলে আল আমিনের সন্ত্রাসী বাহিনী আমাদের বাড়িতে হামলা চালায়। বাঁধা দিলে আল আমিন তার হাতে থাকা লোহার রড দিয়ে খুন করার উদ্দেশ্যে ভাইয়ের মাথায় আঘাত করে। সাথে সাথে সে জ্ঞান হারিয়ে ফেলে।
স্থানীয়দের সহযোগিতায় তাকে দ্রুত স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিলে সেখানেও আল আমিনের সন্ত্রাসী বাহিনী হামলা করে। প্রচন্ড রক্তক্ষরণ হতে থাকায় বাধ্য হয়ে একটি ফার্মেসীতে গিয়ে মাথা সেলাই করাই। কিন্তু সেলাই দূর্বল হওয়ায় এখন সেখানে ইনফেকশন হয়ে গেছে। বর্তমানে তিনি শরীয়তপুর সদর হাসপাতালে চিকিৎসা নিচ্ছেন। আমরা এ হামলার বিচার চাই ও পাওনা টাকা দ্রুত ফেরত চাই।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

- Advertisment -

Most Popular

সাধারণতন্ত্র দিবসে টুইট করতে গিয়েই ভুল

ঘটনাবহুল সাধারণতন্ত্র দিবস । ঘটনার এই স্রোতেই সোশ্যাল মিডিয়ায় দুর্ঘটনা ঘটিয়ে বসলেন শিল্পা শেট্টি। টুইটারে সাধারণতন্ত্র দিবসের শুভেচ্ছা জানাতে গিয়ে ভুল করে স্বাধীনতা দিবসের...

ঝিনাইদহ র‌্যাব-েএর হাতে মুক্তিপণদাবিকারী সন্ত্রাসী গ্রুপের প্রধানসহ ৫ সদস্যকে গ্রেফতার

জাহিদুর রহমান তারিক, ঝিনাইদহঃ ঝিনাইদহ র‌্যাবের কোম্পানি কমান্ডার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার কামাল উদ্দিনের নেতৃত্বে শহরের আরাপপুর এবং মুজিব চত্বর এলাকায় অভিযান চালিয়ে মুক্তিপণদাবিকারী সন্ত্রাসী...

ক্যাপসিকাম চাষে ব্যাপক সাফল্য দেখছে কৃষকরা

জাহিদুর রহমান তারিক, ঝিনাইদহঃ বর্তমানে জনপ্রিয় সবজি’র মধ্যে ক্যাপসিকাম অন্যতম। ক্রমেই বড় শহর থেকে ছড়িয়ে পড়ছে প্রত্যন্তপল্লীর মাঠে ঘাটে। শৈলকুপা কৃষি অফিসের উপসহকারি কৃষি...

দিল্লির লাল কেল্লায় শিখ ধর্মের পতাকা, সংঘর্ষে নিহত ১

ভারতে কৃষি সংস্কার প্রস্তাবের প্রতিবাদে বিক্ষোভরত কৃষকরা পুলিশের লাঠি আর কাঁদানে গ্যাসের মধ্য দিয়ে ঢুকে পড়েছে দিল্লি প্রাণকেন্দ্রে এবং ঐতিহাসিক লাল কেল্লায় উড়িয়ে দিয়েছে...

Recent Comments