সপ্তমবারের জন্য আইসিসি বিশ্বচ্যাম্পিয়ন অস্ট্রেলিয়া !

0
118

মহিলা ক্রিকেটে ফের নিজেদের আধিপত্য প্রতিষ্ঠা করল অস্ট্রেলিয়া। ফাইনালে গতবারের চ্যাম্পিয়ন ইংল্যান্ডকে উড়িয়ে দিয়ে সপ্তমবারের জন্য বিশ্বসেরার খেতাব জিতল অজিরা।

অনবদ্য শতরান করেও ইংল্যান্ডকে জেতাতে পারলেন না নাতালি স্কিভার। চলতি বিশ্বকাপের শুরু থেকেই দুর্দান্ত ছন্দে অস্ট্রেলিয়া। ফাইনালের আগে টুর্নামেন্টের ৮টি ম্যাচের আটটিতেই জিতেছে তাঁরা।

অন্যদিকে, মহিলা বিশ্বকাপের শুরুটা একেবারেই ভাল হয়নি ইংল্যান্ডের। বিশ্বকাপের ৩টি ম্যাচ হারতে হয়েছে তাঁদের। ফর্মের বিচারে অজিরা এগিয়েই ছিল। এদিন খেলার মাঠে দুই দলের ফর্মের সেই পার্থক্য ভালমতোই চোখে পড়ল।ক্রাইস্টচার্চে প্রথমে ব্যাট করতে নেমে শুরুটা দুর্দান্ত করে অস্ট্রেলিয়া।

উইকেটরক্ষক এলিসা হেলি এবং হাইনেস ওপেনিং জুটিতে ১৬০ রান তুলে নেয় অজিরা। ১৬০ রানের মাথায় আউট হন হাইনেস। অন্যদিকে এলিসা হেলি নিজের ধ্বংসলীলা চালিয়ে যান। মাত্র ১৩৮ বলে ১৭০ রানের বিধ্বংসী ইনিংস খেলেন তিনি।

মহিলা বিশ্বকাপের ফাইনালে এটিই এখনও পর্যন্ত সর্বোচ্চ স্কোর। হেলি যখন এই সংহারলীলা চালাচ্ছেন স্টেডিয়ামে তখন উপস্থিত ছিলেন তাঁর স্বামী তথা অস্ট্রেলিয়ার পুরুষ দলের ক্রিকেটার মিচেল স্টার্কও। অন্যদিকে হাইনেসের উইকেটের পর ৪৭ বলে ৬২ রানের দুর্দান্ত ইনিংস খেলেন মুনিও।

মূলত এই তিন ব্যাটারই অজিদের ৩৫৬ রানের বিশাল স্কোরে পৌঁছে দেন। জবাবে ব্যাট করতে নেমে শুরু থেকেই পিছিয়ে পড়তে থাকে ইংল্যান্ড। বিশাল লক্ষ্যমাত্রার চাপে ৮৬ রানের মধ্যেই ৩ উইকেট খুইয়ে ফেলে গতবারের চ্যাম্পিয়নরা।

সেখান থেকে কার্যত একার হাতে লড়াই করেন নাতালি স্কিভার । মাত্র ১২১ বলে অপরাজিত ১৪৮ রানের ইনিংস খেলেন তিনি। কিন্তু তাঁর একাকী লড়াই কাজে আসেনি। শেষপর্যন্ত সঙ্গীহীন হয়ে যান স্কিভার।

৪৩.৪ ওভারে ২৮৫ রানেই শেষ হয়ে যায় ইংল্যান্ডের ইনিংস। ৭১ রানে জয়ী হয় অজিরা। এই জয়ের ফলে সপ্তমবারের জন্য বিশ্ব চ্যাম্পিয়নের খেতাব পেল অজিরা।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here