শরীয়তপুর এসে প্রথম দিনেই আটকা পড়ল বিআরটিসি বাস

0
125

শরীয়তপুর প্রতিনিধি ॥ পদ্মা সেতু উদ্বোধন শেষে যানবাহন চলাচল শুরু হয় রোববার ভোর ৬টা থেকে। উৎসব মুখর পরিবেশে সেতুর উপর দিয়ে ঢাকার ফুলবাড়িয়া বিআরটিসি বাসস্ট্যান্ড থেকে যাত্রি নিয়ে শরীয়তপুরের গোসাইরহাট উপজেলার উদ্দেশ্যে ৮টি বাস ছেড়ে আসে।

বেলা ১১টার দিকে বিআরটিসি বাস শরীয়তপুর বাসস্ট্যান্ডে পৌঁছে। সেখানে শরীয়তপুর আন্তঃজেলা বাস মালিক গ্রুপ ও আন্তঃজেলা শ্রমিক ইউনিয়নের নেতৃত্বে সেই বিআরটিসি বাসগুলো আটক করা হয়।

এতে যাত্রি ভোগান্তি অনেকগুন বেড়ে গেছে। পদ্মা সেতুর উদ্বোধনের দিন শরীয়তপুরের সাথে ঢাকার যোগাযোগ বন্ধ ছিল। দুইদিন পরে যাত্রির চাপও বেশী এই সড়কে। সমন্বয়হীনভাবে জেলা শহরে বিআরটিসি বাস ঢুকে পড়ায় এই সমস্যা হয়েছে বলে দাবী করেছে বাস মালিক গ্রুপ  ও শ্রমিক ইউনিয়নের নেতৃবৃন্দ।

মোহাম্মদপুর বিআরটিসি বাস ডিপোর ম্যানেজার (অপারেশন) সূত্রে জানাগেছে, গত ২৫ জুন পত্র প্রেরণের মাধ্যমে মুন্সিগঞ্জ জেলা প্রশাসক, শরীয়তপুর জেলা প্রশাসক, পুলিশ সুপার ও বিভিন্ন উপজেলা নির্বাহী অফিসারদের পত্রের মাধ্যমে অবগত করেছেন। যেন তারা ঢাকা-টু-শরীয়তপুর (গোসাইরহাট) ভায়া মাওয়া, বুড়িরহাট, তিনখাম্বা রুটে এসি বাস সার্ভিস চলাচলে সহোযোগিতা করেন।

তার ভিত্তিতে রোববার সকাল ৯টা থেকে পালাক্রমে ৮টি বিআরটিসি বাস ঢাকার ফুলবাড়িয়া বিআরটিসি বাসস্ট্যান্ড থেকে ছেড়ে আসে। দুপুর ১২টার পরে সেই বাসগুলো শরীয়তপুর বাসস্ট্যান্ডে পৌঁছে। সেখানে বিআরটিসি বাসের যাত্রি নামিয়ে দিয়ে বাসগুলো জেলা বাস মালিক ও শ্রমিকদের হেফাজতে নিয়ে নেয়।

বিআরটিসি বাস চালক আনোয়ার হোসেন জানায়, শরীয়তপুর বাসস্ট্যান্ডে আসার পরে তাদের বাস থেকে যাত্রি নামিয়ে নিয়ে সাইড করে রাখে শরীয়তপুর জেলা বাস মালিক ও শ্রমিক নেতারা। এখন তারা কর্তৃপক্ষের নির্দেশের অপেক্ষায় রয়েছে।

শরীয়তপুর সুপার সার্ভিস লিমিটেড এর পরিচালক আ. খালেক পালোয়ান বলেন, আমরা আন্তঃজেলা বাস মালিক গ্রুপের পক্ষ থেকে ঢাকার বিভিন্ন রুটে যাত্রি সেবা চালু করেছি। আজও ১৭টি গাড়ি ঢাকার উদ্দেশ্যে ছেড়ে গেছে। আমাদের আরো অনেক গাড়ি নির্মাণাধীন অবস্থায় রয়েছে। এখন বিআরটিসি বাস শরীয়তপুরের বিভিন্ন উপজেলায় চলাচল করলে লোকাল বাসগুলো অচল হয়ে যাবে।

তাছাড়া বিআরটিসি বাস আমাদের সাথে সমন্বয় না করেই জেলায় ঢুকে পড়েছে। তাই বিআরটিসি বাসগুলো সাইড করে রাখা হয়েছে। শরীয়তপুর জেলা প্রশাসক মো. পারভেজ হাসান বলেন, এই বিষয়টি আমাদের নজরে এসেছে। সমস্যাটি সমাধানের জন্য চেষ্টা চলছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here