সিলেটে বসতঘরে সশস্ত্র হামলা; গ্রেফতার ৬ !

0
71
সিলেট প্রতিনিধিঃ সিলেটের কানাইঘাট উপজেলার সীমান্তবর্তী লক্ষীপ্রসাদ পূর্ব ইউনিয়নের কাড়াবাল্লা গ্রামে শুক্রবার (৯ জুলাই) একটি বসতঘরে অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে কয়েকজন বার্তা  হামলার দৃশ্য সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ে। যা নিয়ে সমালোচনামুখর হয়ে উঠে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম।
এ ঘটনায় তৎপর হয়ে উঠে কানাইঘাট থানা পুলিশ। শনিবার (১০ জুলাই) দুপুরে অভিযান চালিয়ে বসতঘরে হামলা ও ভাঙ্গচুরের ঘটনার নেতৃত্ব দানকারী ছালেহা বেগমসহ ৬ জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।
গ্রেফতারকৃত অপর ৫জন হলেন, নাজমিন বেগম, নাসির উদ্দিন, সুমি বেগম, সুহাদা বেগম, রহিমা বেগম। তাদের বিরুদ্ধে আইনআনুগ ব্যাবস্থা গ্রহণ করা হবে বলে জানিয়েছেন থানার ওসি তাজুল ইসলাম।
এলাকাবাসীর কাছ থেকে জানা যায় দীর্ঘদিন ধরে বসত বাড়ীর জায়গা জমি নিয়ে কাড়াবাল্লা গ্রামের মৃত আব্দুন নুরের স্ত্রী এলাকার আলোচিত মহিলা গ্রেফতারকৃত ছালেহা বেগম (৪৫) এর সাথে তার ভাশুর মৃত তবারক আলীর পুত্র মইন উদ্দিন লথু ও ময়নুল গংদের মধ্যে বিরোধ চলে আসছিল।
এ নিয়ে আদালতে উভয় পক্ষের মধ্যে বেশ কয়েকটি মামলা বিচারধীন অবস্থায় রয়েছে। কয়েকদিন পূর্বে ছালেহা বেগম বসত বাড়ীর বিরোধ পূর্ন জায়গা থেকে বেশ কয়েকটি গাছ বিক্রি করেন।
যারা গাছ কিনেছেন তারা গাছ কাটতে আসলে এতে বাধা প্রদান করেন ছালেহা বেগমের ভাশুর মইন উদ্দিন লথু ও ময়নুল গংরা। আপাতত গাছ না কেটে বিষয়টি সামাজিক সালিশের মাধ্যমে সমাধান করে দিবেন বলে এলাকার মুরব্বীয়ানরা উদ্যোগ নেন।
এর জের ধরে গত শুক্রবার বিকেল অনুমান ৫ টার দিকে ছালেহা বেগম তার ছেলে-মেয়ে সহ পরিবারের লোকজন হঠাৎ করে হাতে ধারালো দা ও লাঠিসোট নিয়ে ভাশুর মইন উদ্দিনের টিন সেটের ঘর ভাংচুর শুরু করলে প্রাণের ভয়ে বসত ঘর থেকে বের হয়ে যান তিনি।
এ সময় ছালেহা বেগম ও তার মেয়েরা, পরিবারের লোকজন হাতে ধারালো অস্ত্র নিয়ে নির্বি-চারে মইন উদ্দিনের টিন সেটের ঘর ও আসবাবপত্র ভাংচুর করে গুড়িয়ে দেয়। অনেকের উপস্থিতিতে এ ঘটনা ঘটলেও ভয়ে কেউ প্রতিবাদ করতে পারেননি।
তবে ভাংচুরের পুরো দৃশ্য ভিডিও করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে কয়েকটি আইডি থেকে ছড়িয়ে পড়লে তা ব্যাপক ভাইরাল হয় এবং পুরো এলাকা জুড়ে তোলাপাড় সৃষ্টি হয়।
এ ঘটনায় ক্ষতিগ্রস্থ বসত ঘরের মালিক মইন উদ্দিন লথু বাদী হয়ে কানাইঘাট থানায় শনিবার সকালে আলোচিত মহিলা ছালেহা বেগম সহ তার পরিবারের লোকজনদের আসামী করে অভিযোগ দায়ের করেন।
স্থানীয় অনেকে ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেছেন দীর্ঘদিন ধরে এলাকায় নানা ধরনের অপকর্ম করে যাচ্ছেন ছালেহা বেগম। মামলার ভয়ে তার বিরুদ্ধে এলাকায় কেউ কথা বলতে সাহস পাননা। প্রকাশ্যে তার মেয়েদের নিয়ে নিরীহ মইন উদ্দিনের বসত ঘর ভাংচুর করেছে সে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here